স্মার্টফোন চার্জ

সঠিকভাবে স্মার্টফোন চার্জ করার নিয়ম!

সঠিকভাবে স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম জানতে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য সম্পূর্ণ সহযোগিতা করবে আজকের আর্টিকেলে আমরা এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব কিভাবে সঠিক পদ্ধতিতে সঠিকভাবে স্মার্টফোন চার্জ করা যায়। দৈনন্দিন জীবনে স্মার্টফোন ব্যবহারকারী এত দ্রুত বেড়ে যাচ্ছে যা বলে কিংবা লিখে বুঝানো সম্ভব হচ্ছে না। এখন যেন স্মার্টফোন ব্যবহারে ছাড়া মানুষই পাওয়া যাচ্ছে না। প্রত্যেকটা মানুষের নাগালে স্মার্টফোন পৌঁছে গেছে এবং সমাজের স্মার্টফোনগুলো অনেক বেশি স্মার্ট এবং অনেক বেশি দামি হয়ে থাকে বর্তমান সময়ে স্মার্টফোনের কোন বিকল্প কিছুই নেই সবার হাতে স্মার্টফোন রয়েছে এবং এই স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা কয়েক বিলিয়ন হয়ে গিয়েছে।

সমগ্র পৃথিবীতে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা কয়েক বিলিয়ন যা নিমিষেই ধারণা করা মোটেও সম্ভব নয়। কিন্তু দিন দিন আমাদের এ স্মার্টফোন ধ্বংসের দিকে চলে যাচ্ছে এর আরেকটা কারণ হচ্ছে আমার নিজেদের হাতেই এটা শেষ করার পুরো ভুল করতেছে। বিশেষ করে আমরা স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক একটা মাধ্যম যা জানাতে আমরা সব সময় এই ভুলের মধ্যে পড়ে থাকি। আমরা অধিকাংশ মানুষ স্মার্টফোন চার্জ করার নিয়ম জানিনা সঠিক নিয়ম না জানার ফলে আমাদের স্মার্টফোনকে দিনদিন দশটার দিকে ঠেলে দিচ্ছে এবং প্রতিনিয়ত এটা নষ্টের দিকে ঝুঁকে পড়ছে।

আজকে আমরা এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করব যে কিভাবে স্মার্টফোনকে সঠিক পদ্ধতিতে চার্জ করা যায় এবং স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম সমূহ সম্পর্কে বিস্তারিত। মূলত এ স্মার্টফোন চার্জ করার কিছু নির্দিষ্ট সময়ে রয়েছে যে সময় গুলো আপনাকে অবলম্বন করতে হবে এছাড়া স্মার্ট ফোন ব্যবহার করা কিংবা কোন পকেটে রাখা এ বিষয়ে আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে বিভিন্ন সময় দেখা যায় এ স্মার্ট ফোন দিয়ে বিস্ফোরণ হয়ে থাকে এমন সমস্যা গুলোর জন্য মূলত আমরাই দায়ী কারণ আমরা স্মার্টফোনের ব্যবহার অত ভালো বুঝি না যার জন্য এমনটা হয়ে থাকে।

আরো পড়ুনঃ  ফেসবুকের মেটাভার্স কি ভাবে কাজ করে?

স্মার্ট ফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম!

স্মার্টফোন চার্জ

স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম হচ্ছে আপনি এমন একটা সময়ে স্মার্টফোনকে চার্জ করেন যখন আপনি ফ্রি থাকেন যখন আপনার ফোনের চার্জ কমে আসে এবং যখন আপনার ফোনে মিনিমাম চার্জ ৪০% থাকে তখন আপনি আপনার স্মার্টফোনটিকে চার্জ করুন, স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম এটা। আরো অনেকেই আছে যারা নিজের ব্যক্তিগত স্মার্টফোনকে নিজেই ঝুঁকিতে ফেলে দিচ্ছে যেমন তার স্মার্ট ফোনের চার্জ যখন ১০% – ২০% হয়ে যায় তখন চার্জে বসিয়ে দেয় অর্থাৎ তখন চার্জ করতে লাগে কিন্তু না এটাই স্মার্টফোনের জন্য অনেক বড় সমস্যা এবং অনেক বড় হুমকিস্বরূপ হয়ে থাকে।

স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম হচ্ছে আপনি ধারণা করুন যে আপনার ফোন ফুল চার্জ করলে অর্থাৎ আপনার স্মার্টফোনে ১০০% চার্জ করলে কত ঘন্টা ব্যবহার করা যাবে কিংবা কত সময় ব্যবহার করার যোগ্য এটি ঠিক ততো সময় ব্যবহার করার আইডিয়া মাথায় নিয়ে আপনার স্মার্টফোন চার্জ করুন। অনেকেই রয়েছে রাতে ঘুমানোর সময় স্মার্টফোন চার্জ দিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে এবং সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে তখন স্মার্টফোন চার্জ থেকে ডিসকানেক্ট করে কিন্তু এটা স্মার্টফোনের জন্য অনেক বড় সমস্যা হতে পারে। এমন কি এটা বিস্ফোরণের কারণ হতে পারে।

এটা বিস্ফোরণের কারণে জন্য হবে যে দীর্ঘ সময় আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারি টি বৈদ্যুতিক প্রযুক্তির সাথে কানেক্টেড থাকার ফলে এটি ওভারলোড না নিতে পেরে হয়তোবা বিস্ফোরণ ঘটতে পারে। বেশিরভাগ সময় যেকোনো জিনিস ওভারলোড না দিতে পেরেই বিস্ফোরণ ঘটে ঠিক তেমনি ভাবে স্মার্টফোন ফুল চার্জ হতে কত সময় লাগে ১:৩০ মিনিট সেখানে যদি আপনি টানা ৮-৯ ঘন্টার মত স্মার্ট ফোন চার্জে লাগিয়ে রাখেন সে ক্ষেত্রে এটা ওভারলোড হওয়াটাই স্বাভাবিক এবং এটা বিস্ফোরণ হতেই পারে। সঠিক নিয়মে স্মার্টফোন চার্জ করতে হবে।

আরো পড়ুনঃ  ফেসবুক ব্যবহারের সুবিধা এবং অসুবিধা!

স্মার্টফোন ব্যবহারে সর্তকতা!

স্মার্টফোন চার্জ

স্মার্টফোন ব্যবহারে সর্তকতা রয়েছে সেগুলো আপনাকে অবলম্বন করতে হবে যেমন স্মার্ট ফোন দিয়ে যখন আমরা কিংবা বর্তমানে তরুণ-তরুণীরা গেমস রান করায় অর্থাৎ ফ্রী ফায়ার পাবজি গেমস গুলো খেলে তখন সে গেমসগুলো খেলার ফলে আপনার স্মার্টফোন যে কোম্পানির হোক না কেন সেটা হিট অর্থাৎ তো গরম হবেই এটা স্বাভাবিক। ফোন অতিরিক্ত মাত্রায় গরম হওয়ার ফলে ওই অবস্থাতে যখন আমরা ফোন চার্জ করি অর্থাৎ ফোন চার্জে লাগিয়ে দেই তখন আপনার স্মার্টফোনটি বিস্ফোরন হতে পারে। এটা বিস্ফোরণের একটা মারাত্মক কারণ।

আবার কিছু কিছু সময় দেখা যায় আমরা স্মার্টফোন দীর্ঘসময় ব্যবহার করার ফলে স্মার্টফোনকে অনেক বেশি গরম করে ফেলেছি সেই অবস্থায় অর্থাৎ সেই গরম করা অবস্থায় আমরা স্মার্টফোনকে আমাদের প্যান্টের কিংবা ব্যেগের পকেট এ আটকে রেখেছে যেখান থেকে আমাদের স্মার্টফোনটি ঠান্ডা হওয়ার কোন কৌশল নেই সেখানে আমরা আটকে রেখেছি তো সে ক্ষেত্রে আপনার স্মার্টফোনটি বিস্ফোরণ ঘটতে পারে কেননা এটি গরম থাকা অবস্থায় আপনি ঠান্ডা হওয়ার জন্য সবাই দিন কিংবা ঠান্ডা হওয়ার জন্য একটা স্থানে রাখুন।

স্মার্টফোনকে যদি আপনি ঠান্ডা হতে না চান সে ক্ষেত্রে আপনার বড় ধরনের সমস্যা হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাই আপনাকে জানতে হবে স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম। স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম সবার জন্য জানা জরুরী অনেকেই ভুল করে নিজের স্মার্টফোনকে দিন দিন নষ্ট করে ফেলেছি আবার অনেকে ভুল করে বিস্ফোরণ ডেকে আনছে কিংবা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। যেখানে একটা মানুষ পরিমানমতো খেতে পারে অর্থাৎ পরিমাণের বেশি খেতে পারে না সেখানে যদি তাকে মাত্র তাত্ত্বিক খাওয়ানো হয় সে ক্ষেত্রে তার অবস্থা কেমন হতে পারে সে বিষয়ে ভেবে আপনার স্মার্টফোনকে চার্জ করুন যথারীতি আপনার স্মার্টফোনকে দীর্ঘ ৮-৯ ঘন্টা বৈদ্যুতিক টেকনোলজির সাথে কানেক্ট না রেখে যতটা টাইম প্রয়োজন আপনার স্মার্টফোনকে চার্জ করার জন্য সে টাইম ব্যয় করুন তাহলে আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারি হেলথ অনেক বেশি ভালো থাকবে এবং এটা দিবসে ব্যবহারের উপযোগী হবে।

আরো পড়ুনঃ  ব্যবহৃত মোবাইল কিনছেন না তো আপনি?

স্মার্টফোন কখন কখন চার্জ দিবেন না?

উপরে আমরা ইতিমধ্যে কিছু আলোচনা করেছি কখনো স্মার্টফোন চার্জ দিবেন এরপরেও নতুন করে আবার বলতেছি স্মার্টফোন রাতে ঘুমানোর পূর্বে চার্জ দিবেন না এতে করে আপনার স্মার্টফোন ওভারলোড হয়ে থাকবে তার বেশি রোমান্টিক গরম হয়ে বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে। স্মার্ট ফোন চার্জ করুন দিনের বেলা যখন আপনি লম্বা একটা সময় হাতে পান অর্থ ১-২ ঘন্টা সময় যখন আপনার হাতে থাকে। স্মার্টফোন চার্জ করার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে আমরা অবগত হন। বিভিন্ন চার্জার এর মাধ্যমে স্মার্টফোন চার্জ করবেন না।

আপনার স্মার্ট ফোন ক্রয় করার সময় যে এ চার্জারটি আপনার ডিভাইসের সাথে দেয়া হয়েছে কেবল মাত্র সেই সার্জন এর মাধ্যমে আপনার ফোনটি সবসময় সার্চ করুন অন্য কোন চার্জার এর মাধ্যমে আপনার ফোন কি বা ডিভাইস টি চার্জ করার চেষ্টা করবেন না এতে করে আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারি হেলথ অনেক বেশি নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আপনার নিজের চার্জার কি আপনার নিজের ডিভাইসটিতে ব্যবহার করুন আপনার নিজের চার্জার দিয়ে অন্য কোন ডিভাইস এ সার্চ করবেন না এতে করে আপনার চার্জারের ক্যাপাসিটি কমে যেতে পারে।

সঠিক পদ্ধতিতে এ স্মার্টফোন সঠিকভাবে সার্চ করার নিয়ম গুলো সম্পর্কে আপনি আরো বেশি অনুগত হন এতে করে আপনার স্মার্টফোনকে দীর্ঘ সময় ব্যবহার করার উপযোগী হবে এবং দীর্ঘ সময় খুব ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারবেন এবং এটার মাধ্যমে কোন ধরনের বিপদের আশঙ্কা থাকবে না।

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *